শতাধিক মহিলাকে ঠকিয়ে অবশেষে ধরা পড়ল প্রতারক

বাংলা নিউজ ইউকে ডটকমঃ সব্বাইকে ভালোবাসা বিলোতে ভালোবাসেন। তবে তার ভালোবাসা পেতে হলে দিতে হবে খানিক মূল্যও। সম্প্রতি ভারতের বেঙ্গালুরু পুলিশের হাতে ধরা পড়ল এক প্রতারক। তার প্রতারণার চক্করে পড়েছেন ১০০-র বেশি মহিলা। এদের প্রত্যেককে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে টাকা হাতিয়েছে এই মহাপুরুষ।

সাদাত খান ওরফে প্রীতম কুমারকে ২১ জুন গ্রেফতার করা হয় এক মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে।

মহিলাদের ঠকানোর পন্থাটি অবশ্য ইনি খুব সহজ সরলই বের করেছিলেন। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিবাহসম্পর্কিত ওয়েবসাইটে বিবাহবিচ্ছিন্না একাকী মহিলারাই ছিলেন সাদাতের টার্গেট লিস্টে।

প্রথমে নিজেকে সরকারি কর্মচারি হিসেবে পরিচয় দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব রাখত সাদাত। পরে তাদের বিশ্বাস অর্জন করে কোনো সমস্যার কথা জানিয়ে বড় অঙ্কের টাকা ধার নিয়ে চম্পট দিত সে।

তদন্তে নেমে বেঙ্গালুরু পুলিশ জানতে পারে, এই ব্যক্তির নামে আগেও অভিযোগ দায়ের হয়েছে বিভিন্ন পুলিশ স্টেশনে। সেই তালিকায় রয়েছে কে আর পুরম, জয়ানগর এবং বিদ্যারান্যায়পম। হাসানের বাসিন্দা সাদাতকে বেশ কিছু বছর আগেই বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল বলেই জানা গেছে।

২০১১ সালে বেঙ্গালুরু এসে যশবন্তপুরে ঢালাইয়ের দোকানে কাজ শুরু করে সে। পরে বিভিন্ন সংস্থায় টেলিকলার হিসেবেও চাকরি করে সে। সেই সব সংস্থায় মহিলা সহকর্মীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহারের জন্যে তাকে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়।

তার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় মামলা করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন