বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ৬ বছরেও স্থাপন করা হয়নি ক্যাম্পাসের সীমানা প্রাচীর

বাংলা নিউজ ইউকে ডটকমঃ বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ৬ বছর পার হলেও স্থাপন করা হয়নি ক্যাম্পাসের সীমানা প্রাচীর। ওয়ার্ক অর্ডারের সময় সীমা শেষ হলেও কাজ শেষ করা যায়নি এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সীমানা প্রাচীরের। এতে অনেকটাই অরক্ষিত হয়ে পড়েছে গোটা ক্যাম্পাস।

ফলে সদর উপজেলার কর্নকাঠিস্থ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে অনায়াসে প্রবেশ করছে বহিরাগতরা। তারা যে কোনো সময় অনাকাংখিত ঘটনা ঘটাতে পারে বলে মনে করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, কীর্তনখোলা নদীর তীর ঘেঁষে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক অপূর্ব স্থানে গড়ে উঠেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস। গত ২০১১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তি স্থাপন করেন। এর মধ্য দিয়ে বরিশালবাসীর এক স্বপ্নের সফল বাস্তবায়ন হয়। এর শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয় ২০১২ সালের ২৪ জানুয়ারি। মানসম্মত উচ্চশিক্ষা ও সহশিক্ষা কার্যক্রমের প্রত্যয় এ বিশ্ববিদ্যালয়ের লক্ষ্য।

তবে প্রতিষ্ঠার ৬ বছর পার হরেও নির্দিষ্ট সীমানা প্রাচীরের নির্মাণ কাজ শেষ হয়নি। এতে অনেকটা অরক্ষিত অবস্থায় রয়েছে ক্যাম্পাসসহ একাডেমিক ভবন। প্রায় সময় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সাথে বহিরাগতের মারামারি ও হামলার ঘটনা ঘটছে। বিশেষ করে বাস শ্রমিকদের সাথে এমন ঘটনা বেশী হচ্ছে। এ সময় হামলা ও সংঘর্ষে বরিশাল পটুয়াখালী রুটের বাস ভাংচুর হয় আবার কখনো বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এসে হামলা চালানো হয়।

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক সংলগ্ন বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে সীমানা প্রাচীর না থাকায় দিনে রাতে যখন খুশি তখন বহিরাগতরা ঢুকে পড়ে ক্যাম্পাসে। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের সড়কগুলোও সন্ধ্যার পর অনিরাপদ হয়ে ওঠে। মাদকসহ নানা ধরনের অপরাধ কর্মকান্ড সংঘঠিত হয় তখন। ক্যাম্পাসে ঢুকতে ধরাঁবাধা কোন নিয়ম না থাকায় বিভিন্ন অপকর্ম করে সহজেই পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এতে করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ বিঘিœত হচ্ছে। পাশাপাশি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে গোটা ক্যাম্পাস ও শিক্ষার্থীরা।

মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আরিফ জুবায়ের জানান, প্রাচীর না থাকায় উন্মুক্ত রাস্তা দিয়ে যে কোনো লোক প্রবেশ করে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটাতে পরে। কঠোর নিরাপত্তা রক্ষার্থে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের একটি অংশকে সিসি টিভির ক্যামেরার আওতায় আনা হলেও সীমানা প্রাচীরের না থাকায় গোটা ক্যাম্পাসটা এখনও অরক্ষিত রয়েছে। বহিরাগতরা সহজেই প্রবেশ করতে পারে।

লোকমান হোসেন নামে অপর এক ছাত্র জানান বলেন, বহিরাগত ছেলে-মেয়ের কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। অবিলম্বে সীমানা প্রাচীরটি নির্মান জরুরি। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আর্কষণ করছি আমরা।

শেয়ার করুন