১০ দিনের মধ্যে স্ত্রীর সঙ্গে সমঝোতা করতে ক্রিকেটার সানিকে আলটিমেটাম

বাংলা নিউজ ইউকে ডটকমঃ নির্যাতনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ১০ দিনের মধ্যে স্ত্রী নাসরিন সুলতানার সঙ্গে সমঝোতা করার জন্য জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার আরাফাত সানিকে আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে। না হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করেছেন বিচারক।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. কামরুল হোসেন মোল্লা ওই আদেশ দেন। একইসঙ্গে পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

মামলার বাদিনীর সাথে সমঝোতা করবেন বলে এর আগে চারবার মামলার ধার্য তারিখে সানি আদালতে হাজির হয়ে জামিন বাড়ানোর আবেদন করেছেন। মামলায় শুনানির শুরুতে সানি জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেন। সানির পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী কাজী নজিবুল্লাহ হিরু।

নাসরিনের আইনজীবী আতিকুর রহমান জামিনের বিরোধিতা করেন। তিনি বলেন, সমঝোতার কথা বলে আদালতকে মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে সানি জামিনের মেয়াদ বর্ধিত করেছেন। ঠিক একই কথা আজও বলেছেন। বাস্তবতা এই যে, আসামি বাদিনীর সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করেন না।

গত ১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার চার নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে বাদী হয়ে এ মামলা করেন সানির স্ত্রী নাসরিন সুলতানা। সানির মা নার্গিস আক্তারকেও আসামি করা হয়। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন সানি।

মামলায় বলা হয়, সাত বছর আগে পরিচয়ের সূত্র ধরে আরাফাত সানির সঙ্গে নাসরিনের ঘনিষ্ঠতা হয়। ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর তারা বিয়ে করেন। কিন্তু বিয়ের তিন বছরেও সানি নাসরিন সুলতানাকে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘরে তুলে নেননি। বারবার এ বিষয়ে চাপ দিলেও তিনি কালক্ষেপণ করেন।

প্রসঙ্গত, সানির বিরুদ্ধে যৌতুক নিরোধ আইনে ও তথ্য ও যোগাযাগ প্রযুক্তি আইনে পৃথক দুটি মামলা করেন তার স্ত্রী নাসরিন। গত ২২ মার্চ তথ্য প্রযুক্তির মামলায় সানির বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে পুলিশ। চার্জশিটে সানির সাথে নাসরিনের বিয়ে হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে সানি বরাবরই বিয়ের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

শেয়ার করুন