ড্রীমলেন্ড পার্কের অবহেলা ১ : ‘বিদেশে কুত্তা বিলাইর মুল্য আছে কিন্তু বাংলাদেশে মানুষের কোন মুল্য নেই’ (ভিডিও)

বাংলা নিউজ ইউকে ডটকমঃ  ড্রীমলেন্ড পার্কের দায়িত্বশীলদের অবহেলায় প্রায় মৃত্যুর পথ থেকে ফিরে আসলেন পার্কে ঘুরতে আশা লন্ডন প্রবাসী একটি পরিবার।

ড্রীমলেন্ড পার্কে ঘুরতে যাওয়া প্রবাসী নাসির উদ্দিন ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ২নং মাইজগাও ইউনিয়নের বাসিন্দা।

নাসির উদ্দিন বলেন ০৭/০৮/০১৭/ ইংরেজি তারিখে আমার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ড্রীমলেন্ড পার্কে ঘুরতে যাই, একসময় আমার ছেলেরা পার্কের পানির লেক একটি নৌকায় চড়ে আনন্দ করতে চায় এবং নৌকাতেও উঠেপড়ে শাকিল (১৯) জামিল (১৫) কামিল (১০) এবং শাওন (১৬) তারা কিছুদূর যাওয়ার পরে নৌকাটিতে পানি উঠতে শুরু করে তখন তারা প্রাণপণ চিৎকার শুরু করে তাদের চিৎকারে আমরা ড্রীমলেন্ড পার্কের দায়িত্বশীলদের ডাকাডাকি শুরু করী কিন্তু অত্যান্ত দুঃখজনক বিষয় লেকের দায়িত্বপ্রাপ্তরা আমার ছেলেদের বাঁচানোর জন্য এক পাও এগিয়ে আসেনি পরে আমি এবং এখানে ঘুরতে আশা কয়েকজন যুবক মিলে আমার ছেলেদের উদ্ধার করে পারে উঠাই।

প্রবাসী নাসির উদ্দিন বলেন কিছুক্ষন পর ড্রীমল্যান্ডের id card লটকানো এক ব্যক্তি হাজির হলে তার সাথে আমার আরেক ভাগ্না সাহীন আহমেদ আলাপ করে- ম্যানেজার আসার কথা বললে উনি আধাঘন্টা পরে হাজির হয়, উনি বলেন জোহরের নামাজ আদায় করছিলো, (এমন পরিস্থিতি জেনেও উনি নামাজ নিয়ে বিজি ছিলেন, নামাজ ত কিছুক্ষন পরে আদায় করলেও পারত উনি, এতবড়ো ঘটনা লাইফ ডেথ সিচুয়েশন উনার কাছে যেন কিছুইনা ) ড্রীমলেন্ড পার্কে ঘুরতে আশা পর্যটকমহল ডেইলি ফেঞ্চুগঞ্জ ডটকমকে  বলেন যেহেতু আমাদের জীবনের কোন মুল্য নেই পার্ক কর্তি পক্ষের কাছে তাহলে কোন নিরাপত্তায় আসবো আমারা ! কে দেবে আমাদের নিরাপত্তা।

চুখের সামনে আমরা দেখেছি কয়েকটা ছেলে নৌকা চড়তে গিয়ে নৌকাডুবে ছেলেরা বাচার জন্য কিভাবে প্রাণপণ চিৎকার করছিল কিন্তু পার্কের দায়িত্বরত কেউ এগিয়ে আসেনি দাড়িয়ে মজা লুটছিলো তারা।

প্রবাসী নাসির উদ্দিন বলেন পার্কের দায়িত্বশীলদের কাছে আমাদের প্রানের কোন মুল্য নেই ! তিনি পার্কে ঘুরতে আশা পর্যটকদের বলেন আপনারা যদি পরিবার নিয়ে এখানে আসতে চান তাহলে নিজ দায়িত্বে আসবেন এখানে কোন নিরাপত্তা দেওয়া হয়না পার্ক কর্তিপক্ষ থেকে।

এবিষয়ে পার্কের জেনারেল ম্যানেজার সুমনুর রশিদ এর সাথে এই প্রতিবেদক মোটো ফোনে আলাপ করতে চাইলে ম্যানেজার ফোন রিসিভ করেন নি। ঘটে যাওয়া ঘটনার বিস্তারিত ভিডিওতে দেখুন।

শেয়ার করুন