ধর্মগুরু গুরু রাম রহিম সিংয়ের সাজার ঘোষণায় ছড়িয়ে পড়া সহিংসতার ঘটনায় ৫০০ ভক্ত গ্রেফতার

বাংলা নিউজ ইউকে ডটকমঃ ‘ধর্ষণ গুরু’ খ্যাত ধর্মগুরু গুরু রাম রহিম সিংয়ের সাজার ঘোষণায় ছড়িয়ে পড়া সহিংসতার ঘটনায় ৫০০ শতাধিক ভক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

হরিয়ানার সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা রাম নিয়াজ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, পাঞ্জাব ও হরিয়ানা এলাকার ধর্মীয় উসকানি দাতাদের গ্রেফতার ও অস্ত্র উদ্ধারের জন্য চেষ্টা চলছে বলে।

এরআগে, শুক্রবার হরিয়ানা রাজ্যের পঞ্চকুলার বিশেষ সিবিআই আদালত বাবা রামকে ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করে।

এদিকে, সোমবার তার বিরুদ্ধে সাজা ঘোষণা করবে আদালত। আইন অনুযায়ী তার সাত বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

রায় ঘোষণার পরপরই পাঞ্জাব ও হরিয়ানা রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। লাঠি, বাঁশ, ইট-পাথর নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে ধর্মগুরুর সমর্থকরা। পুলিশও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ ও কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ ও গুলি চালায়।

সহিংসতার জেরে ৩১ জন নিহত ও দেড়শতাধিক ব্যক্তি আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সহিংসতা নিয়ন্ত্রণে পাঁচকুলা ছাড়াও পাঞ্জাবের ভাতিন্ডা, মনসা, মুকতাসর, ফিরোজপুরে কারফিউ জারি করে। তবে শনিবার কারফিউ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, হরিয়ানার সিরসা শহরের কাছে অবস্থিত এলাকার ডেরা সাচা সওদার সদর দফতরের ভেতরে একজন শিষ্যকে রাম রহিম নিয়মিত ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগ ওঠে। ধর্ষিতা ২০০২ সালে থানায় মামলা দায়ের করেন।

শেয়ার করুন