সিলেটে অসহায় মোঃ জয়নাল আবেদিন এর পরিবারকে নিজ বসত বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার পায়তারা…

এমরান আহমেদ : সিলেট জেলার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার গাজীপুর এলাকার এক অসহায় মোঃ জয়নাল আবেদিন এর পরিবারকে তার ক্রয়কৃত নিজ বসত বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার পায়তারা করছেন একই এলাকার প্রভাবশালী কিছু লোক।

১/ মো: সেলিম চৌধুরী( ৪০) পিতা মৃত আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী ২/ তুহিন চৌধুরী (৩৫) পিতা আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, ৩/সাফান আলী (৩২) পিতা মৃত রহমত আলী।
জয়নাল আবেদিন অভিযোগ করে বলেন আমি বিগত ১৯/০৬/২০১৭ ইং তারিখে আব্দুল মুকিত চৌধুরীর কাছে থেকে ৩ নং ঘিলাছড়া ভুমি অফিস গাজীপুর মৌজার জে এল নং ২০ স্থিত জরিপি এস এ ৩০২ বি এস ছাপা ৮৮ নং খতিয়ানের এস এ ৪০৮ বি  এস এ ৩৬০ দাগের রেকর্ডে চারা ১২ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ১৩ শতক ৬০ পয়েন্ট জায়গা বসতবাড়ি করার জন্য ক্রয় করি।
এদিকে অভিযুক্তরা জয়নাল আবেদিন এর কাছে ১ লক্ষ টাকা চাদা দাবি করে আসছে এমন কি যদি টাকা না দেওয়া হয় তাহলে তাদের এই বসতবাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার হুমকি দিয়ে আসছে ! ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় মামলা দিয়ে আর্থিক ক্ষতি সাধন করতে উন্মাদ হয়ে উঠেছে কতিপয় ওই প্রভাবশালী লোক- বলছিলেন জয়নাল আবেদিন ।
এ কারণে জান-মাল রক্ষা করতে এখন গ্রামবাসীসহ পুলিশ-প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ধর্না দিচ্ছে ওই অসহায় পরিবারটি। নিজে খেয়ে না খেয়ে অর্থ জমিয়ে জমি কিনে এখন মরন কিনেছেন বলে দাবি করেন বর্তমানে ৮ জনের একমাত্র উপার্জনক্ষম জয়নাল আবেদিন।
বর্তমানে ঐ প্রভাবশালী লোক দরিদ্র অসহায় পরিবারটিকে প্রান নাশের প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে এবং কি ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় আমাদের বিরুদ্ধে মিত্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে আসছে বলে অভিযোগ করেন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম মো: জয়নাল আবেদিন, যার উপরে সংসারের ৮ জন সদস্যের রুটি-রুজির দায়ভার।
তবে এ প্রসঙ্গে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার এ এস আই মো: হালিম আহমদ এর সাথে মোবাইল ফোনে আলাপ করলে তিনি জানান- জায়গা সংক্রাত বিষয়ে সেলিম আহমদ বাদি হয়ে লিখিত অভিযোগ থানায় এসে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে করছেন- ১/ জয়নাল মিয়া (৪৫) ২/ গিয়াস মিয়া(৩৫), ৩/রিয়াজ আহমদ (৩০) পিতা মৃত জড়ন আলী, ৪/ বাবুল আহমদ (৩২), ৫/খোকন আলী(২৬), পিতা মৃত সিরাজ আলী, (৬) ফয়সল আলী (৪৫)পিতা মৃত খোকা আলী, ৭/পাখি মিয়া (৫০) পিতা মৃত শুকই আলী, ৮/ শাকিল মিয়া (২৬) পিতা উকিল মিয়া, ৯/ উকিল মিয়া (৫৫) পিতা মৃত ইলিয়াস আলী, নামে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
উভয় পক্ষের জায়গা সংক্রাত বিষয়ে মীমাংসার জন্য মামলা সিলেট কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। এবিষয়ে মামলার বাদি সেলিম আহমদের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি কথা বলতে নারাজ প্রকাশ করেন।
এই রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত জানাগেছে বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে ফেঞ্চুগঞ্জ বিবিধ মোকদ্দমা নং ৩০ / ২০১৭ এবং প্রসেস নং১৩৩২ তারিখ ২৮/০৯ ০১৭ ফৌজদারি কার্যবিধি আইনের ১৪৪ দারায় জায়গার উপরে নোটিশ করেছেন ফেঞ্চুগঞ্জ থানার এস,আই রবিউল ইসলাম।
শেয়ার করুন