আশুলিয়ায় থানা যুবলীগের ব্যানারে রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণের নামে চাঁদা আদায়কালে আটক ১

বাংলা নিউজ ইউকে ডটকমঃ আশুলিয়ায় থানা যুবলীগের ব্যানারে রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণের নামে চাঁদা আদায়কালে নাজমুল হক ইমু (২৫) কে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টায় আশুলিয়ার জামগড়া ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে থানা যুবলীগের ব্যানার সাঁটিয়ে মিয়ানমার থেকে আগত অসহায় রেহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণের নামে চাঁদা আদায়কালে বেরণ মোল্লা বাজারের পিছনের জসিম মিয়ার ছেলে নাজমুল হক ইমু কে এলাকাবাসী ও থানা যুবলীগের নেতৃবৃন্দের সহায়তায় আটক করে। পরে থানা পুলিশের হাতে তাকে সোপর্দ করা হয়।

আটককৃত নাজমুল জানান, রোহিঙ্গাদের জন্য অর্থ সহায়তার জন্য আশুলিয়ার ৯০ টি স্থানে দান বাক্স বসানো হয়েছে। যেহেতু সে যুবলীগের সাবেক কর্মী তাই সেই নামটি ব্যানারে ব্যবহার করা হয়েছে। সাবেক যুবলীগ তাকে এ ব্যাপারে উৎসাহিত করেছে বলে সে ক্যামেরার সামনে কথা বলে। সে আরও জানায় এখন পর্যন্ত কয়েকটি বাক্স থেকে নয় হাজার টাকা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এসময় তারা আরো বলেন, আশুলিয়া থানা যুবলীগের সাবেক কয়েক নেতার নির্দেশে জামগড়া সহ বিভিন্ন স্থানে যুবলীগের ব্যানারে রোহিঙ্গাদের জন্য চাঁদা আদায় চলছে এ খবর পেয়ে বর্তমান থানা যুবলীগের নেতৃবৃন্দ ফ্যান্টাসি কিংডমের সামনে থেকে রোহিঙ্গাদের জন্য হাতে-নাতে চাঁদা আদায়কালে এলাকাবাসীর সহায়তায় কয়েকজন দূর্বত্তকে ধরতে গেলে নাজমুল ধৃত হয় এবং তার সঙ্গীয় ৭/৮ জন পালিয়ে যায়। বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ আটককৃত নাজমুল হক ইমু কে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মশিউর রহমান নয়ন জানান, আমরা খবর পেয়ে তাকে ব্যনার ও দান বাক্সসহ আটক করে নিয়ে আসি। তাকে জিজ্ঞাসাবদ চলছে। এছাড়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে কোন ধরনের চাদাঁবাজি বেআইনি বলে ঘোষণা করা হয়েছে। তাই সে অবশ্যই অপরাধ যোগ্য। যদি তার সাথে কেউ জড়িত থাকে তাহলে তাকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন