মেসি’র গোলে বার্সার জয়

বাংলা নিউজ ইউকে রিপোর্ট : মেসি-সুয়ারেজের গোলে প্রথম ক্লাসিকো রাঙালো বার্সেলোনা।

আজ শনিবার সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে রিয়ালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে বড় দিনের ছুটিতে মেসি-সুয়ারেজরা। দলের অন্য গোলটি এলেক্স বিদালের। এই জয়ে লা-লিগায় রিয়ালের চেয়ে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে গেল ভালভেরদের শিষ্যরা।

প্রথমার্ধে বেশিরভাগ সময় বল দখলে রাখার পাশাপাশি আক্রমণেও এগিয়ে ছিল রিয়াল। কিন্তু বিরতির পর পাল্টে যায় চিত্রপট।। ১৫ মিনিটের ব্যবধানে দুবার জালে বল পাঠিয়ে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় বার্সেলোনা। দুই দলের একাদশ দেখেই মনে হয়েছিল, এ ম্যাচে আর যা–ই হোক, গোল–বন্যা হচ্ছে না।

বার্সার ৪-৪-২ ফরম্যাশন দেখে বিস্ময়ের কিছু ছিল না। অবাক করেছেন জিদান। গ্যারেথ বেল ছিলেন না শুরুর একাদশে। ১০ মিনিটে চমকটা আরও বাড়ল। যখন প্রায় পেনাল্টি স্পটে পাওয়া বলটি থেকে ফাঁকায় থাকা রোনালদো পা ছোঁয়াতে পারলেন না। সাধারণত বিশ্বস্ত বাঁ পা বলে শট নিলেই এগিয়ে যেতে পারত রিয়াল। কিন্তু পায়ে-বলে হলো না রোনালদোর।

শুরু থেকে চেপে বসা রিয়ালের কবজা থেকে বার্সার মুক্তি মিলল ১৫ মিনিট পেরিয়ে। ১৮ মিনিটে প্রথম রিয়ালের বক্সে বল নিয়ে ঢুকল বার্সা। ম্যাচের পরবর্তী ভালো সুযোগটাও বার্সেলোনা পেয়েছে। ৩০ মিনিট পর্যন্ত প্রায় নিষ্ক্রিয় থাকা মেসি থ্রু বলে খুঁজে নিলেন পাওলিনহোকে। দারুণ এক দৌড়ে নিজেকে ফাঁকায় নিয়ে যাওয়া পাওলিনহো শটও নিয়েছিলেন দারুণ। তবে কেইলর নাভাসের সেভে বেঁচে গেল রিয়াল।

৩৯তম মিনিটে আবারও নাভাসে রক্ষা রিয়ালের। বাঁ-দিক থেকে মেসির ক্রসে পাওলিনিয়োর দারুণ হেড ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান কোস্টা রিকার গোলরক্ষক।

দ্বিতীয়ার্ধের নবম মিনিটে দারুণ এক আক্রমণে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। মাঝমাঠের কাছ থেকে ইভান রাকিতিচ বল পায়ে ছুটে ডান দিকে সের্হিও রবের্তোকে বাড়ান। রবের্তো ডি-বক্সের বাঁ-দিকে বাড়ালে জোরালো শটে গোল করেন লুইস সুয়ারেজ।

ম্যাচটা শেষ হয়ে গেল ৬২ মিনিটে। মেসির এক পাসে রিয়ালের ডিফেন্স ছত্রখান। সুয়ারেজের শট ঠেকিয়ে দিলেন নাভাস। সুয়ারেজের ফিরতি শট পোস্টে লেগে ফিরে এলে পাওলিনহো হেড নেন। সে বল আটকাতে হাত ব্যবহার করেন কারভাহাল। সরাসরি লাল কার্ডের সঙ্গে পেনাল্টি। পেনাল্টি থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করলেন মেসি (২-০)।

আক্রমণের ধার বাড়াতে ৭২তম মিনিটে মাতেও কোভাসিচের জায়গায় গ্যারেথ বেল ও কাসেমিরোকে তুলে মার্কো আসেনসিওকে নামান কোচ।

আক্রমণভাগের শক্তি বাড়ায় বাকি সময়ে বার্সেলোনার রক্ষণে চাপ বাড়াতেও সক্ষম হয় রিয়াল। বেল, রোনালদোরা বেশ কিছু সুযোগও তৈরি করেছিল; কিন্তু কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা মেলেনি।

উল্টো ম্যাচের শেষ মুহুর্তে খেলতে নামা ভিদাল রিয়ালের কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন। ডান দিক দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে দারুণ এক কাটব্যাক করেন মেসি। তাতে ভিদালের জোরালো নিচু শট ঠেকাতে ঝাঁপিয়ে পড়েন নাভাস। গতি কমাতে পারলেও প্রতিহত করতে পারেননি এই গোলরক্ষক।

লিগে এখন পর্যন্ত অপরাজিত বার্সেলোনার ১৭ ম্যাচে ১৪ জয় ও তিন ড্রয়ে পয়েন্ট ৪৫। আর এক ম্যাচ কম খেলা রিয়ালের পয়েন্ট ৩১।

শেয়ার করুন