সৌদি আরবে এক মাসের মধ্যে বাংলাদেশিসহ সকল প্রবাসী শ্রমিকদের পাসপোর্ট ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ

প্রবাস ডেস্ক : সৌদি আরবে এক মাসের মধ্যে বাংলাদেশিসহ সকল প্রবাসী শ্রমিকদের পাসপোর্ট ফিরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় সম্প্রতি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও তাদের মালিকদের কাছে থাকা ওই সব পাসপোর্ট ফিরিয়ে দেওয়ার এই নির্দেশ দেয়।

গত বছরের জুলাই মাসে মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, মালিকরা তাদের প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বিদেশি শ্রমিকদের পাসপোর্ট নিজেদের কাছে রাখতে পারবে না। কোনো মালিক তাঁর প্রতিষ্ঠানের বিদেশি শ্রমিকদের পাসপোর্ট জব্দ করে রাখলে তাঁকে শ্রমিক প্রতি দুই হাজার সৌদি রিয়াল জরিমানা দিতে হবে। ওই ঘোষণার পরও কিছু প্রতিষ্ঠান তাদের শ্রমিকদের পাসপোর্ট নিজেদের কাছে জব্দ করে রাখে। এর পরই শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় ওই নির্দেশ দিল।

মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র খালিদ আল খাইল জানিয়েছেন, মন্ত্রণালয় শ্রমিকদের অধিকার রক্ষা এবং মালিক-শ্রমিকদের মধ্যে চুক্তিমূলক সম্পর্ক নিয়ন্ত্রণের জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

২০১০ সালে এক গবেষণার পর জামিনদার প্রথা বিলুপ্তির আহ্বান জানায় দ্য ন্যাশনাল সোসাইটি ফর হিউম্যান রাইটস (এনএসএইচআর)। সে সময় সংস্থাটি পরামর্শ দিয়েছিল যে নিজের পরিবারের সদস্যদের ফোন করা এবং হজে অংশ নেওয়ার জন্য কোনো শ্রমিকের তাঁর মালিকের কাছ থেকে কোনো অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই।

এনএসএইচআরের মহাসচিব খালিদ আল ফাখরি বলেছেন, শ্রমিকের পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত করে রেখে দেওয়া মানব পাচারের মতোই। পাসপোর্ট একটি ব্যক্তিগত দলিল। পাসপোর্ট নিয়ে নেওয়ার অধিকার কারো নেই।

শেয়ার করুন