নিউ ইয়র্কে হামলা চেষ্টাকারী বাংলাদেশির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক : নিউ ইয়র্কের ব্যস্ততম বাস টার্মিনালে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের চেষ্টার সময় আহত অবস্থায় গ্রেপ্তার বাংলাদেশি যুবক আকায়েদ উল্লাহর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে গ্র্যান্ড জুরি।

বুধবার ম্যানহাটনের ফেডারেল আদালতে ২৭ বছর বয়সী আকায়েদের বিরুদ্ধে বিদেশি সন্ত্রাসী সংগঠনকে সহায়তা, ব্যাপক বিধ্বংসী অস্ত্রের ব্যবহার, জনসমাগমস্থল ও গণপরিবহন ব্যবস্থায় সন্ত্রাসী হামলা ও বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সম্পদের ক্ষতি করার চেষ্টাসহ ছয়টি গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে। এসব অভিযোগ প্রমাণিত হলে বাকি জীবন তাকে কারাগারেই কাটাতে হবে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। আকায়েদের পক্ষে আদালতের নিয়োগ করা আইনজীবী অ্যামি গ্যালিসিচিওর মন্তব্য বুধবার তাৎক্ষনিকভাবে জানা যায়নি।

গত মাসে আকায়েদকে গ্রেপ্তারের পর তার বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করেছিলেন সরকারি প্রসিকিউটররা।

প্রসিকিউটররা জানিয়েছেন, ১১ ডিসেম্বর ম্যানহাটনের টাইম স্কয়ার সাবওয়ে স্টেশন থেকে পোর্ট অথরিটি বাস টার্মিনালে যাওয়ার সংকীর্ণ ভূগর্ভস্থ পথে নিজের শরীরে বাঁধা ‘পাইপ বোমায়’ বিস্ফোরণ ঘটান আকায়েদ। বোমাটি ঠিকমত বিস্ফোরিত না হওয়ায় প্রাণে বেঁচে গেলেও গুরুতর আহত হন তিনি। এছাড়া বিস্ফোরণে আহত হন তিন পুলিশ সদস্য।

মামলায় বলা হয়েছে, ইসলামিক স্টেটের (আইএস) মাধ্যমে অনুপ্রাণিত হয়ে আকায়েদ এ হামলা চালানোর চেষ্টা করেছিলেন বলে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

ফেডারেল প্রসিকিউটররা জানিয়েছেন, ২০১১ সাল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বাস করছেন আকায়েদ্। ২০১৪ সালে ইন্টারনেটে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের বিভিন্ন প্রচার দেখে উগ্রপন্থার দিকে ঝুঁকতে থাকেন তিনি।

ডিসেম্বরে হামলার পর বাংলাদেশ পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম রয়টার্সকে বলেছিলেন, দেশে আকায়েদের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার কোনো রেকর্ড নেই। যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার আগে কোনো জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতারও তথ্য মেলেনি।

শেয়ার করুন