লর্ড কার্লাইলকে আসতে দিচ্ছে না সরকার

ডেস্ক: দলের চেয়ারপারসন কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়ার মামলার লিগ্যাল টিমের পরামর্শক ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কার্লাইভকে সরকার বাংলাদেশে আসতে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। মঙ্গলবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার লিগ্যাল টিমের নতুন সদস্য ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কার্লাইভকে বাংলাদেশে আসতে বাধা দেয়া হয়েছে। ৮ মে‘র সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের শুনানিতে খালেদা জিয়ার ডিফেন্স টিমের অংশগ্রহণ করতে তিনি গত কয়েক সপ্তাহ আগে লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে ভিসার জন্য আবেদন করেছিলেন। কিন্তু তাকে হাইকমিশন ‘হ্যাঁ’ও বলেননি, ‘নাও’ বলেনি। এটাতে স্পষ্ট যে সরকার প্রত্যক্ষভাবে বেআইনিভাবে আইনজীবী লর্ড কার্লাইভকে বাংলাদেশে ঢুকতে বাধা দিচ্ছে। বেগম খালেদা জিয়া যে শক্তিশালী লিগ্যাল টিম আছে তা যাতে আরো শক্তি না হয়। সেটাকে বাধাগ্রস্ত করতেই তাকে বেআইনিভাবে ভিসা দেয়া হয়নি বলে আমরা মনে করি।

রিজভী লর্ড কার্লাইভ আল জাজিরায় দেয়া সাক্ষাৎকারের বক্তব্য তুলে ধরে রিজভী বলেন, আজকে লর্ড কার্লাইভকে ভিসা দেয়া হলো না। অথচ ১/১১-এর সময়ে আজকের প্রধানমন্ত্রী যখন জেলে ছিলেন তখন তিনি কানাডার একজন আইনজীবী প্রফেসর প্যায়াম একাদাম ও ব্রিটেনের একজন আইনজীবী চেরী ব্লেয়ারকে নিয়োগ দিয়ে বাংলাদেশে নিয়ে এসেছিলেন এবং তারা সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রেখেছিলেন এই যে বর্তমান সরকারের দ্বিচারিতা এটা এই সরকারের প্রধান বৈশিষ্ট। আমরা যে বার বার বলে এসেছি, প্রধানমন্ত্রী প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়েছে এবং তাকে সাজা দেয়া হয়েছে। লর্ড কার্লাইভ সম্প্রতি আল-জাজিরা টেলিভিশনে যে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তাতে তার বক্তব্যে এটা স্পষ্ট হয়েছে। কারণ ব্রিটিশ এই আইনজীবী বলেছেন যে, মামলার ডকুমেন্ট পর্যালোচনা করে বেগম খালেদা জিয়াকে বাংলাদেশের নিম্ন আদালত যে অভিযোগে সোপর্দ করা হয়েছে, যে বিষয়ে তাকে অভিযুক্ত করার কিছু নেই। সাজা দেয়া দূরে থাক।

শেয়ার করুন