২ জুন ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু

ঈদুল ফিতর সামনে রেখে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি আগামী ২ জুন শুরু হবে। টিকিট বিক্রি চলবে ৬ জুন পর্যন্ত। আর ফিরতি টিকিট বিক্রি হবে ৯ থেকে ১৩ জুন পর্যন্ত।

রেলওয়ে সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। আগামী ২ জুন সকাল থেকে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে ২৪টি কাউন্টারে একসঙ্গে আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। নারীদের জন্য থাকবে দুটি কাউন্টার।

রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন  বলেন, ঈদুল ফিতরের সম্ভাব্য তারিখ আগামী ১৬ জুন ধরে নিয়ে রেলওয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছে। আগামী ২ জুন অগ্রিম ও ৯ জুন ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবেন রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক। তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে টিকিট বিক্রি ও সার্বিক ব্যবস্থাপনা ঘোষণা দেবেন।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল সূত্র জানায়, এখন পর‌্যন্ত যে পরিকল্পনা তাতে আগামী ২ জুন অগ্রিম ও ৯ জুন ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু করা হবে। ২ জুন বিক্রি হবে ১১ জুন যাত্রার টিকিট, ৩ জুন বিক্রি করা হবে ১২ জুনের টিকিট। এ ছাড়া ৪, ৫ ও ৬ জুন যথাক্রমে ১৩, ১৪ ও ১৫ জুনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি হবে।

অন্যদিকে আগামী ৯ জুন ঈদ-পরবর্তী ১৮ জুনের ফিরতি টিকিট বিক্রি হবে। ১০, ১১, ১২ ও ১৩ জুন যথাক্রমে ১৯, ২০, ২১ ও ২২ জুনের ফিরতি টিকিট বিক্রি হবে।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আগামী ১৬ জুন ঈদ উদযাপনের সম্ভাব্য তারিখ ধরে নিয়ে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রির সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ জন্য রেলওয়েতে প্রস্তুতি চলছে। ঈদ উপলক্ষে নিয়মিত কাউন্টারের পাশাপাশি অতিরিক্ত কাউন্টার থেকেও অগ্রিম টিকিট বিক্রি হবে।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, আমরা ঈদ উপলক্ষে অগ্রিম টিকিট বিক্রির সম্ভাব্য তারিখ পেয়েছি। ইতিমধ্যে আমরা প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে স্ব স্ব স্থানে কাজ শুরু করে দিয়েছি। এবার প্রায় ২৪টি কাউন্টার থেকে একযোগে টিকিট বিক্রি শুরু হবে। টিকিট কালোবাজারি রোধে পুরো স্টেশনের সঙ্গে কাউন্টারের ভেতর ও বাইরে পর্যাপ্ত সিসি ক্যামেরা স্থাপনা করা হচ্ছে। ছাদে যাত্রী ওঠা রোধে আমরা কঠোর হচ্ছি।

শেয়ার করুন